পাল্টা আক্রমণ করে বসলেন নোরা ফাতেহি

প্রতারক সুকেশ চন্দ্রশেখরের ২০০ কোটি টাকা তছরুপের মামলা নিয়ে জল কম ঘোলা হয়নি। যদিও দিল্লি পুলিশ এরই মধ্যে মামলার সাপ্লিমেন্টারি চার্জশিট জমা দিয়েছে। শুরুতে এই মামলায় বলিউড তারকা জ্যাকলিন ফার্নান্দেজের নাম জড়িয়েছিল।

এরপর যুক্ত হয় নোরা ফাতেহির নাম। জেলবন্দি সুকেশ নিজেও নোরার বিরুদ্ধে বক্তব্য দিয়েছিল। নিজের আইনজীবী অনন্ত মালিক ও এ কে সিংয়ের মাধ্যমে সুকেশ অভিযোগ করে, জ্যাকলিনের বিরুদ্ধে নাকি তার মগজ ধোলাই করতেন নোরা। দিনে অন্তত ১০ বার সুকেশকে ফোন করতেন এই বলিউড ড্যান্স ডিভা।

শুধু তাই নয়, তার কাছ থেকে নোরা দামি সব উপহারও নিয়েছেন। সুকেশের এমন বক্তব্যের পর আর কোনোভাবেই নিজেকে দমিয়ে রাখতে পারেননি নোরা। পাল্টা আক্রমণে এই প্রতারকের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেছেন। এবার সেই মামলার বয়ানে নোরা তাঁর বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করে জানিয়েছেন, তাঁকে বলির পাঁঠা বানানো হয়েছে। যেহেতু তিনি বহিরাগত [মরক্কোর নাগরিক], তাই তাঁকে সহজ টার্গেট হিসেবে বেছে নেওয়া হয়েছে। আসল অপরাধীদের দিক থেকে দৃষ্টি সরিয়ে নিতেই তাঁকে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হয়েছে।

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.